বার্লিতে ওজন কমবে

  


পিএনএস ডেস্ক: ওজন বাড়াতে যেমন সবচেয়ে বেশি দায়ী থাকে বিভিন্নরকম খাবার, তেমনই কিছু খাবার আছে যা খেয়ে সহজেই ওজন কমানো সম্ভব। তবে শুধু খাবার বা শরীরচর্চার যেকোনো একটিই বেছে নিলে আপনার ওজন হু হু করে কমবে, তা কিন্তু নয়। বরং দুটিই সমানতালে চালিয়ে নিতে হবে। সঠিক খাবার ও সঠিক শরীরচর্চা এই দুই মিলে আপনার ওজন কমাবে।

এমন অনেক ছোট ছোট জিনিস রয়েছে যা আপনার ওজন হ্রাস প্রক্রিয়াটি গতিময় করতে পারে এবং এর মধ্যে একটি উপাদান বার্লি ওয়াটার। ফাইবার সমৃদ্ধ বার্লি, ওট এবং গমের মতো এক প্রকারের শস্য। বার্লি শরীরের জন্য খুবই উপকারী। ওজন কমানোর প্রক্রিয়ায় বার্লিকে যোগ করে নিন।

বার্লি একটি পুষ্টিকর শস্য। আধাকাপ বার্লিতে থাকে:
ক্যালরি- ৯৬
ফ্যাট- ১ গ্রাম
স্যাচুরেটেড ফ্যাট- ১ গ্রাম
কার্বোহাইড্রেট- ২২ গ্রাম
প্রোটিন- ২ গ্রাম
ডায়েট্রি ফাইবার- ৩ গ্রাম
সোডিয়াম- ২ মিলিগ্রাম
ম্যাঙ্গানিজ- ১ মিলিগ্রাম।
বার্লি মিশ্রিত পানিতে ক্যালরি বেশি এটা ঠিক, কিন্তু ফ্যাট জাতীয় উপাদান প্রায় নেই বললে চলে। এতে থাকা ফাইবারের উপাদানগুলি সহজে হজমে সহায়তা করে।

ওজন কমানোর প্রক্রিয়ায় থাকাকালীন বারবার খেতে ইচ্ছে করে, বিশেষ করে অস্বাস্থ্যকর স্ন্যাকিংয়ের ইচ্ছা বেড়ে যায়। যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে বার্লি ওয়াটার সাহায্য করে। ফলে ওজন বাড়ার কারণ কমিয়ে ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে।

বার্লির উপকারিতা:
কোলেস্টেরল কমায়: প্রতিদিন বার্লি খেলে আপনার কোলেস্টেরলের স্তর নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। বার্লি বা যবের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যগুলো শরীরের ফ্রি র্যাডিকালগুলো থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে যা আপনাকে স্বাস্থ্যকর রাখে।

রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে: বার্লি আপনার রক্তে শর্করার মাত্রাও নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এই পানীয়টি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য বেশ উপকারী। ডাক্তাররা অনেক সময় ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীদের বার্লি খাওয়ার পরামর্শ দেন।

ভিটামিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ: বার্লি ভিটামিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। যা স্বাস্থ্যকর কোষের বৃদ্ধি সক্ষম করে। এটি ফোলেট, লোহা, তামা এবং ম্যাঙ্গানিজের মত পুষ্টিকর প্রয়োজনীয় উপাদানে ভরপুর।

ওজন কমাতে বার্লি যেভাবে তৈরি করবেন-
উপকরণ:
বার্লি- ১ কাপ
পানি- দেড় লিটার
লেবুর রস- ২ টেবিল চামচ
মধু- ১ টেবিল চামচ
দারুচিনি- ১টি।
প্রণালি:
একটি প্যানে এককাপ বার্লি যোগ নিন। এবার এতে দেড় লিটার পানি এবং দারুচিনি স্টিক দিন এবং এটি ফুটতে দিন ভালোভাবে। কমপক্ষে ৩০ মিনিটের জন্য কম আঁচে পানি ফুটিয়ে বার্লি সেদ্ধ করে নিন। ৩০ মিনিট পর গ্যাস অফ করে একটি গ্লাসে বার্লি নামিয়ে ঠান্ডা করে নিন।

এবার বার্লির সাথে লেবুর রস ও মধু মিশিয়ে নিন। তৈরি হয়ে গেল আপনার বার্লি ওয়াটার। দিনে কমপক্ষে দু’বার এই বার্লি মিশ্রিত পানি পান করুন। আপনি যেকোনো সময় এই পানীয় পান করতে পারেন।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech