জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আজ খালেদা জিয়ার আপিল শুনানি

  

পিএনএস ডেস্ক : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালাস চেয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার করা আপিল আবেদনের শুনানি হবে সোমবার (৯ জুলাই)। দুপুর দুইটায় শুনানি হবে।

রোববার (৮ জুলাই) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আপিল শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেছিলেন।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এ জে মোহাম্মদ আলী। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ফরহাদ আহমেদ। দুদকের পক্ষে ছিলেন- অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। খালেদা জিয়ার পক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন- ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুর রেজাক খান, জয়নুল আবেদীন, মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, বদরুদ্দোজা বাদল, কায়সার কামাল, ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান প্রমুখ।

খালেদা জিয়া ছাড়াও এ দুর্নীতি মামলায় সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল ও শরফুদ্দিন আহমেদের করা পৃথক আপিল এবং খালেদার সাজা বাড়ানোর জন্য দুদকের করা আবেদনের শুনানি একসঙ্গে হবে।

আদালতে খালেদার আইনজীবী বলেন, ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আপিল মামলার নিষ্পত্তিতে উচ্চতর আদালতের আদেশ পুনর্বিবেচনা চেয়ে আবেদন করেছেন খালেদা জিয়া। ওই আবেদনের শুনানির জন্য আপিল বিভাগে ৯ জুলাই দিন ধার্য রয়েছে। এরপর আদালত আপিল শুনানির জন্য আজ দিন ঠিক করে। গত ১২ মার্চ জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে চার মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেয় হাই কোর্ট। পরে আপিল বিভাগেও এই জামিন বহাল থাকে। তবে বেশ কয়েকটি মামলায় গ্রেফতার থাকায় তার কারা মুক্তি মেলেনি।

এরই মধ্যে হাই কোর্টের দেওয়া চার মাসের জামিনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ১২ জুলাই। এ অবস্থায় জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি চেয়ে আবেদন করেছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। রায় ঘোষণার দিন থেকেই রাজধানীর নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে তাকে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech