বনশ্রীতে গৃহপরিচারিকা ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

  



পিএনএস ডেস্ক: রাজধানীর বনশ্রী এলাকায় নিলা নামে এক গৃহপরিচারিকা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

পুলিশের দাবি, মেয়েটি এক ছেলের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলেই ফোন জানালা দিয়ে ফেলে রুমে গিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে বাড়ির আশপাশ থেকে ফোনটি উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

সোমবার সন্ধ্যায় বনশ্রী বি-ব্লকের এক নম্বর রোডের ৩৬ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিলার বয়স আনুমানিক ১৬ থেকে ১৭ বছর। বাড়িটির গৃহকর্তার নাম আব্দুল করিম।

রামপুরা থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) বদরুল আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য নিলার মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত রামপুরা থানার এসআই আক্তার বলেন, ওই বাসায় গৃহপরিচারিকার ফাঁসের সংবাদ শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। সেখানে গিয়ে একটি ঘরে মেয়েটিকে মৃত অবস্থায় পাই। বাড়ির লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নিলা সন্ধ্যায় তার ব্যক্তিগত মোবাইলে একটি ছেলের সঙ্গে কথা বলছিল। কথা বলার কিছুক্ষণ পরই সে মোবাইলটি জানালা দিয়ে ফেলে দেয় এবং তার ঘরে গিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দেয়। বাড়ির লোকজন নিলার ঘরের দরজা খুলে তাকে ঝুলে থাকতে দেখে।

তিনি আরও বলেন, আব্দুল করিমসহ তার পরিবারের লোকজনকে ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। নিহতের মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুত করা হয়েছে। তার গলায় দাগ ছাড়া অন্য কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।

নিলা ছয় মাস ধরে এই বাসায় কাজ করত। বাড়ির লোকজন জানায়, দীর্ঘদিন ধরে সে ফোনে একটি ছেলেটির সঙ্গে কথা বলত।

পিএনএস/হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন