কুমিল্লায় আ’লীগের সম্মেলনে হামলা-ভাংচুর আহত ২০

  

পিএনএস ডেস্ক: কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে প্রবেশকালে সম্মেলন কমিটির আহ্বায়ক ও দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ম. রুহুল আমিনের কর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার সকালে জেলার চান্দিনা উপজেলা সদরের মহিলা কলেজ মাঠে ওই সম্মেলনে প্রবেশকালে এ ঘটনা ঘটে। এতে আইনজীবীসহ ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক এবং সভাপতি প্রত্যাশী ম. রুহুল আমিন অভিযোগ করেন, সম্মেলনে অংশগ্রহণ করার জন্য বিভিন্ন স্থান থেকে আমার নেতাকর্মীরা চান্দিনা উপজেলা সদরে আসলে অপর সভাপতি প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সরকারের সমর্থকরা আমার নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তারা গুলি চালিয়ে বেশ কয়েকটি বাস ভাংচুর করে।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলামকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢামেকে প্রেরণ করা হয়।

ম. রুহুল আমিন বলেন, এ ছাড়া আবুল কালাম, রফিক চৌধুরী, মো. জাকির হোসেন, জসিম উদ্দিন, ইয়াসির আরাফাত বাবুসহ ২০ নেতাকর্মী আহত হন।

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি আমি কুমিল্লা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেনকে অবগত করেছি।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার বলেন, আমার নেতাকর্মীরা কোথাও হামলা করেনি, উল্টো আমার নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে চান্দিনা থানার ওসি আবুল ফয়সল বলেন, সম্মেলনস্থলে প্রবেশকালে কতিপয় নেতাকর্মীদের মাঝে হাতাহাতি এবং চেয়ার ছোড়াছুঁড়ির ঘটনা ঘটেছে, পরবর্তী সময় পুলিশের তৎপরতায় পরিস্থিতি শান্ত হয়ে আসে।

পিএনএস/হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন