আগে জীবন, পরে ক্রিকেট : রবি শাস্ত্রী

  


পিএনএস ডেস্ক: করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের মাঝে বিশ্বজুড়ে সমস্ত ক্রীড়া ইভেন্ট বাতিল হয়ে গেছে। খেলোয়াড়-কোচদের অলস সময় কাটছে বাড়িতে বসে। যেভাবে ছড়িয়ে পড়ছে এই মারণ রোগ, তাতে উদ্বেগ বাড়ছে। ভারতেও চলছে লকডাউন। নিউজিল্যান্ড সফরের পর আপাতত বিশ্রামে জাতীয় ক্রিকেটাররা। ১২ মার্চ থেকে ১৮ মার্চ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে ওয়ানডে সিরিজ হওয়ার কথা ছিল। ২৯ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল আইপিএলের। কিন্তু কোনোটাই এখন হচ্ছে না। কবে হবে তাও নিশ্চিত নয়।

ভারতের জাতীয় দলের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী বলেছেন, 'এটা আমাদের কাছে একটা ধাক্কা। সত্যি বলতে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজের সময় আমরা যখন রাস্তায় ছিলাম, তখনই এটা অনুমান করতে পেরেছিলাম। যেভাবে এই রোগ ছড়িয়ে পড়ছিল, তাতে এমন কিছু হতে পারে বলে ধারণা ছিল। যখন দ্বিতীয় ওয়ানডে বাতিল হয়ে গেল তখন বুঝলাম যে, লকডাউন অনিবার্য। ক্রিকেটাররাও বুঝে গিয়েছিল পরিস্থিতিটা। নিউজিল্যান্ডেই ওরা এমন ধারণা করেছিল। আমরা একদম ঠিক সময়ে দেশে ফিরেছিলাম। যে দিন বিমানবন্দরে নামলাম, সে দিন থেকেই স্ক্রিনিং শুরু হয়েছিল।'

শুধু নিজের নিরাপত্তা নয়, সকল মানুষের নিরাপত্তার কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন শাস্ত্রী, 'এখন সবার মাথায় ক্রিকেটের কথা সবার শেষে থাকছে। নিরাপদে থাকাই এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আর শুধু নিজের সুরক্ষা নয়, অন্যদের সুরক্ষিত থাকার দিকেই খেয়াল রাখতে হবে। মানুষের মাঝে সচেতনতা বাড়াতে হবে যে, এই লকডাউন ব্যাপারটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কোহলি সবাইকে উদ্বুগ্ধ করেছে। অন্যরাও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সতর্ক করছে। ক্রিকেটাররা জানে এখন আমরা একটা সিরিয়াস সময়ের মধ্যে দিয়ে চলেছি। এখন ক্রিকেট বন্ধ রাখতেই হবে।'

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন