‘অর্থনৈতিক অঞ্চল হিসেবে গড়ে উঠবে কক্সবাজার’

  

পিএনএস ডেস্ক: কক্সবাজারকে অর্থনৈতিক অঞ্চল হিসেবে গড়ে তোলা হবে উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুুরুল মজিদ হুমায়ুন বলেছেন, কক্সবাজারে একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার প্রক্রিয়া চলছে। এটি বাস্তবায়িত হলে দেশি-বিদেশি উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগে ব্যাপক কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সমস্যা বোঝেন। তিনি কক্সবাজারের উন্নয়নকে আলাদাভাবে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছেন। তার সে মূল্যায়নের খবর সাধারণ জনতার কাছে পৌঁছানোর দায়িত্ব আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠন সবার।

বৃহস্পতিবার রাতে সৈকতের একটি তারকা হোটেলে কক্সবাজার জেলা ও পৌর আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের বাঁশখালী-আনোয়ারার লবণে সারাদেশের চাহিদা মেটে। তাই কক্সবাজারে একটি লবণ রিফাইনারি প্রকল্প স্থাপন করা হবে। এটি বাস্তবায়ন হলে জেলায় উৎপাদিত লবণের গুরুত্ব আরও বেড়ে যাবে।

মন্ত্রী আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের উদ্দেশে বলেন, দলে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকবে, প্রতিহিংসা নয়। আওয়ামী লীগের দীর্ঘ সংগ্রামে অনেকেই নেতৃত্বে দিয়েছেন, কিন্তু কেউ জাতির জনক হতে পারেনি। জাতির জনক হয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন বিধায় আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি। আজ জাতির জনকের কন্যার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশ অর্থনৈতিক মুক্তি, ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তর হচ্ছে।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সংসদ সদস আশেক উল্লাহ রফিক, মহিলা সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা মোস্তাক, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা কামাল হোসেন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও জজ আদালতের পিপি মমতাজ আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল খালেক, কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ নজিবুল ইসলাম প্রমুখ।

জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক আবু তাহের আজাদের সঞ্চালনায় সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. শফিক মিয়া, অ্যাডভোকেট বদিউল আলম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুল হক মুকুল, অ্যাডভোকেট রণজিত দাশ, অ্যাডভোকেট আব্বাস উদ্দিন চৌধুরী, খোরশেদ কুতুবী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কাইছারুল হক জুয়েল, চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা তাহের, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল, জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আয়েশা সিরাজ, সাধারণ সম্পাদক তাহমিনা চৌধুরী লুনা, ঝিলংজার চেয়ারম্যান টিপু সোলতান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বিকেলে শিল্পমন্ত্রী বিএসটিআইয়ের কক্সবাজার কার্যালয় ভবন উদ্বোধন করেন। দুপুরে বিমানের একটি ফ্লাইটে মন্ত্রী কক্সবাজার পৌঁছালে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসাইনসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাকে স্বাগত জানান। পরে হিলডাউন সার্কিট হাউসে তাকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়। এ সময় জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন ও এসপি এবিএম মাসুদ হোসেনসহ পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech