মাধুরীর একাধিক প্রেমে জড়ানো, হৃদয় ভাঙার গল্প

  

পিএনএস ডেস্ক : মাধুরী দীক্ষিত। তার মায়াবী চেহারা, মিষ্টি হাসি, দুর্দান্ত নৃত্যশৈলী ভক্তদের মুগ্ধ করে। ১৫ মে ছিল মাধুরীর ৫৩ তম জন্মদিন। ১৯৬৭ সালে মুম্বাইতে জন্ম তার। এই সুন্দরীর জীবনে নানা টানাপোড়েন এসেছে। একাধিক প্রেমের সম্পর্ককে জড়িয়েছিলেন তিনি। নব্বইয়ের দশকে তার ও সঞ্জয় দত্তের প্রেম ছিল বহুল চর্চিত বিষয়।

এই নায়কের বায়োপিক ‘সাঞ্জু’তে তাদের ব্যক্তিগত জীবনের কিছু বিষয় বস্তু ছিল। যেটি শেষ পর্যন্ত বাদ দিতে হয়েছিল। কারণ মাধুরী নাকি চাননি সেসব পুরোনো বিষয় সামনে আসুক।

মাধুরী ‘অবোধ’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রেখেছিলেন। একদম ছোটবেলা থেকে নাচ শিখেছেন। মাত্র ৩ বছর বয়স থেকেই শেখা শুরু তার। এবার আসা যাক সঞ্জয়-মাধুরীর প্রেম নিয়ে আলোচনায়। ভারতীয় গণমাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে এসেছে ওই সময় অর্থাৎ নব্বইয়ের দশকে সঞ্জয় দত্তও নাকি চেয়েছিলেন মাধুরীকে বিয়ে করতে। কিন্তু সেই সময় সঞ্জয় বিবাহিত হওয়াতে দু’জনের বিয়েতে বাধা আসে।

তাদের সম্পর্ক ভাঙার পেছনে একটি কারণ ছিল। ১৯৯৩ সালে মুম্বাই বিস্ফোরণে সঞ্জয়ের নাম জড়িয়ে যেতে সম্পর্কে চিড় ধরেছিল। সঞ্জয়-মাধুরীর খলনায়ক সুপারহিট হয়। ১৯৯৩ সালে শুটিং করতে বিদেশে গিয়েছিলেন সঞ্জয় দত্ত। তখন তার বোন প্রিয়া দত্ত ফোন করে জানায়, সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে টাডার মামলা করা হয়েছে। যখন দেশে ফিরছিলেন ঠিক সেই সময়েই বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সঞ্জয়কে।

মাধুরীর রূপে মুগ্ধ হয়েছিলেন একাধিক মানুষ, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন সুরেশ ওয়াদেকর। শোনা যায়, মাধুরীকে বিয়েও করতে চেয়েছিলেন। সুরেশ ওয়াদেকর একজন জনপ্রিয় গায়ক ছিলেন, মারাঠি সংস্কৃতির প্রতি বেশ দখলও ছিল তার।

কিন্তু সুরেশের বাড়ির লোকেরা অন্য জায়গায় তার বিয়ে ঠিক করেন। সুরেশের সঙ্গে বিয়ের ব্যাপারে মাধুরীর পরিবার রাজী ছিলেন। তবে সুরেশের বাড়ি থেকে তা না করে দেওয়া হয়।
পরবর্তীতে অনিল কাপুর ও মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গেও মাধুরীর প্রেমের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। তবে একের পর এক হিট ছবি উপহার দিয়ে মাধুরী তার ভক্তদের খুশি রেখেছেন সব সময়। তার মনের অন্তরালে কী চলছে তা কখনোই বুঝতে দেননি।

১৯৯৯ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কর্মরত দন্ত চিকিৎসক শ্রীরাম নেনের সঙ্গে মাধুরীর বিয়ে হয়। দুই ছেলে অরিন ও রায়ানকে নিয়ে সুখের সংসার তাদের।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন