‘বাঙ্গালি নয়, বাংলাদেশি মুসলিমদের তাড়ানো হবে’

  

পিএনএস ডেস্ক : ‘আমরা বাংলাদেশি মুসলিমদের তাড়াবো, বাঙ্গালিদের নয়’- এমনই প্রচারণা চালাচ্ছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিজেপি। সম্প্রতি দলটির একটি রাজনৈতিক প্রচারণা বিলবোর্ডে এমন কথা লিখে রাখতে দেখা গেছে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বিজেপির বিরুদ্ধে বাঙ্গালি বিদ্বেষের অভিযোগ আনলে এই কৌশল নেয় দলটি। আসামে ৪০ লাখ বাংলাভাষী মানুষকে নাগরিক তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে মমতা ওই অভিযোগ তোলেন।

কলকাতায় বিজেপি সভাপতির এক মহাসমাবেশের আগে এই ধরনের প্রচারণা চালায় বিজেপি।

এক সিনিয়র বিজেপি নেতা বলেন, ‘আমরা বাঙ্গালিদের বিরুদ্ধে নই, বরং অবৈধ অভিবাসনের বিরুদ্ধে। আমরা সেসব হিন্দুকে আশ্রয় দিব যারা প্রতিবেশি দেশ (বাংলাদেশ) থেকে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার স্বীকার হয়ে ভারতে পালিয়ে এসেছেন। কিন্তু যেসব মুসলিম অবৈধ অভিবাসী ভারতে বসবাস করছেন তাদের তো আমরা আশ্রয় দিতে পারি না। কিন্তু আসামের নাগরিক তালিকা প্রকাশের পর পশ্চিমবঙ্গে ভুল বার্তা এসেছে যে, আমরা বাঙ্গালিদের বের করে দিব। আমরা পরিষ্কার করে বলতে চাই যে, আমরা শুধু বাংলাদেশি মুসলিমদেরকেই আসাম থেকে বের করে দিব, অন্য কাউকে নয়।’

শুক্রবার, ১০ আগস্ট ২০১৮ কলকাতায় এক মহাসমাবেশে বক্তৃতা করেন বিজেপির জাতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

গত মঙ্গলবার বিজেপির জাতীয় সেক্রেটারি রাহুল সিনহা বলেছিলেন, পশ্চিমবঙ্গও বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ মুসলিম অভিবাসীদের আখড়া হয়ে উঠেছে। তারা আমাদের চাকরি, খাদ্য এবং কর্মসংস্থানে ভাগ বসাচ্ছে। সুতরাং পশ্চিমবঙ্গেও আসামের মতোই নাগরিক তালিকা হওয়া উচিত। এবং অবৈধ বাংলাদেশি মুসলিম অভিবাসীদের তাড়িয়ে দেওয়া উচিত।’

সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech