ভারতে ৯ বছরের শিশুকে বলি দিল আত্মীয়রা!

  

পিএনএস ডেস্ক : একবিংশ শতাব্দীতে বিজ্ঞানের হাত ধরে বিদ্যুৎগতিতে এগিয়ে চলেছে বিশ্ব। কিন্তু এই দুনিয়ারই কিছু অঞ্চলে আজও প্রকৃত শিক্ষার আলো পৌঁছায়নি৷ এই একুশ শতকে এসেও মানুষ নামের কিছু প্রাণী তাদের অসভ্যতাকে বিসর্জন দিতে পারেনি। এমনটাই দেখা গেল ভারতে।সেখানে দেবী দুর্গাকেই সন্তুষ্ট করতে অন্ধবিশ্বাসের বলি এক শিশু।

দুর্গাপুজা মানেই আনন্দ, উৎসবমুখর পরিবেশ, সকলের মঙ্গল কামনা করা। অশুভ শক্তির বিনাশ করে শুভ শক্তির প্রতিষ্ঠা করাও এই পুজার উদ্দেশ্য৷ কিন্তু দুর্গাকে তুষ্ট করতেই প্রাণ গেল এক নিরীহ শিশুর।

ওড়িশার বোলাঙ্গির জেলার সিন্ধেকেলা গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ সূত্রে খবর, সিন্ধেকেলার এক নদীর তীর থেকে ৯ বছরের এক শিশুর মুণ্ডহীন দেহ উদ্ধার করা হয়েছিল।

জানা যায়, মৃতের নাম ঘনশ্যাম রানা। তদন্তে শিশু খুনের কিনারা করতে খুব বেশি সময় লাগেনি। পুলিশ বুঝতে পারে, বলি দেওয়ার উদ্দেশেই খুন করা হয়েছে ওই শিশুকে; আর তা করেছে তারই আত্মীয়।

এ ঘটনায় মৃতের আত্মীয় কুঞ্জা রানা এবং চাচাতো ভাই সম্ভাবন রানাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জেরায় তারা বলি দেওয়ার কথা স্বীকারও করে নিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

জানা গেছে, অভিযুক্ত দু’জনই কালো জাদুতে(ব্ল্যাক ম্যাজিক) বিশ্বাসী। সেই কুসংস্কার থেকেই দেবী দুর্গাকে তুষ্ট করতে নরবলির আয়োজন করে তারা। একপর্যায়ে ঘনশ্যামকে বলি দিয়ে দেবীর চরণে সমর্পণ করা হয়।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech