মার্কিন পাইলট গ্রেফতার চীনে

  


পিএনএস ডেস্ক: অস্ত্র চোরাচালানের দায়ে অভিযুক্ত করে আন্তর্জাতিক কুরিয়ার সার্ভিস কোম্পানি ফেডএক্সের একজন মার্কিন পাইলটকে গ্রেফতারের খবর নিশ্চিত করেছে চাইনিজ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গণমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল গ্রেফতারকৃত পাইলটের নাম টড এ. অন বলে জানিয়েছে।

চাইনিজ পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং শুক্রবার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, 'চীনের দক্ষিণাঞ্চলের শহর গুয়াংজু থেকে ঐ মার্কিন কুরিয়ার পাইলটকে ১২ সেপ্টেম্বর আটক করে কাস্টম কর্মকর্তারা। এসময় তার কাছে ৬৮১ এয়ারসফট সিরিজের বেশকিছু গুলি পাওয়া যায়। গুয়াংজু থেকে হংকংয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলো সন্দেহভাজন সেই ব্যক্তি।'

এদিকে নিজেদের কর্মকর্তার উপর চোরাচালানের অভিযোগে নড়ে বসেছে ফেডএক্স। কারণ এর সাথে তাদের দীর্ঘদিনের সুনামও জড়িত। বিশ্বখ্যাত কুরিয়ার সার্ভিস কোম্পানিটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে একটি সমঝোতায় পৌঁছানোর জন্য তারা তৎপরতা চালাচ্ছেন।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গ্রেফতারকৃত টড আগে মার্কিন বিমানবাহিনীতে একজন কর্নেল ছিলেন। টডের ব্যাগে অধাতব কিছু গুলি এবং রেপ্লিকা বন্দুক পাওয়া গেছে। এগুলো তেমন ধ্বংসাত্মক অস্ত্র বলে বিবেচিত হয় না। তবে, চীন তাদের তদন্ত শেষ না করা পর্যন্ত ঐ পাইলট দেশটির বাইরে বের হতে পারবেন না।

গেং শুয়াং জানান, 'টডকে আপাতত জামিন দেয়া হয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।'

উল্লেখ্য, অস্ত্র-নিয়ন্ত্রণের জন্য চীনের এমন কিছু আইন আছে, যেগুলো পৃথিবীর সবচেয়ে কঠোর আইনগুলোর মধ্যে পড়ে। ২০১৬ সালে দেশটির ফুজিয়ান প্রদেশে এক ব্যক্তি ইন্টারনেটের মাধ্যমে ২৪টি রেপ্লিকা বন্দুক কেনার অর্ডার করেন। পরে ওই ব্যক্তিকে শাস্তি হিসেবে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করে দেশটির আদালত।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech