চা বাগানে নিয়ে পালাক্রমে নারীকে ধর্ষণ - মফস্বল - Premier News Syndicate Limited (PNS)

চা বাগানে নিয়ে পালাক্রমে নারীকে ধর্ষণ

  

পিএনএস ডেস্ক: হবিগঞ্জে এক নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে দুই লম্পট। এতে ওই নারী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ মামুন নামে এক যুবককে আটক করেছে।

পুলিশ জানায়, শনিবার দুপুরে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ওলিপুর এলাকায় কর্মস্থল প্রাণ কোম্পানিতে যাচ্ছিলেন ওই নারী। পথে সদর উপজেলার ধুলিয়াখাল থেকে দুই যুবক ওই একটি সিএনজিতে তুলে চুনারুঘাটের একটি চা বাগানে নিয়ে যায়। পরে ওই বাগানে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করা হয়। রাত ৮টার দিকে তার জ্ঞান ফিরলে সে জানায় তাকে তুলে নিয়ে একটি বাগানে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে মামুন ও তার বন্ধু।

রাতে বিষয়টি হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ জানতে পেরে থানার এসআই পলাশ চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ হাসপাতাল এলাকা থেকে বাহুবল উপজেলার বিহারীপুর গ্রামের রজব আলীর ছেলে মামুন মিয়াকে আটক করে।

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে জররি বিভাগের চিকিৎসক মিঠুন রায় জানান, তাকে প্রথমে রক্তক্ষরণ জনিত কারণে অজ্ঞান অবস্থায় ভর্তি করা হয়। পরে জ্ঞান ফিরলে সে জানায় তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ধর্ষণের অভিযোগে নারী শ্রমিক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি দিয়ে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই নারী শ্রমিক সাংবাদিকদের জানান, তিনি প্রাণ কোম্পানিতে যাচ্ছিলেন। পথে চেনা পরিচিত মামুন ও আরেক যুবক জোর পূর্বক তুলে নিয়ে চুনারুঘাট উপজেলার একটি একটি চা বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াছিনুল হক জানান, পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে মামুন মিয়া নামে এক যুবককে আটক করেছে। অপর যুবককে আটকের চেষ্টা চলছে।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech