স্বাস্থ্যকথা

হজমশক্তি বাড়ায় সফেদা

  

পিএনএস ডেস্ক : সফেদা অত্যন্ত সুস্বাদু একটি ফল। সারা বিশ্বেই এটি পাওয়া যায়। খেতে সুস্বাদু এই ফলটির রয়েছে দারুন সব পুষ্টিগুণ। পুষ্টি উপাদানে ভরপুর থাকার কারণে সফেদা স্বাস্থ্যসম্মত ফলও বটে। খেতে মিষ্টি এই ফলটির ভিতরটি খুবই নরম আর তুলতুলে হয়। সফেদা চোখের জন্য খুবই উপকারী। এতে বিদ্যমান ভিটামিন 'এ' চোখ ভালো রাখতে সাহায্য করে। এতে থাকা ভিটামিন সি-ও চোখ ভালো রাখতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে, চোখের রেটিনা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ঝুঁকি কমায়।সফেদায় প্রচুর পরিমানে ভিটামিন 'সি' থাকায় এটি রোগ প্রতিরোধ

চিকিৎসাসেবা ও সুরক্ষা আইন চূড়ান্ত

  

পিএনএস ডেস্ক: নিরাপদ ও মানসম্মত চিকিৎসাসেবা প্রদান এবং স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানসমূহ যথাযথ পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে ‘চিকিৎসাসেবা ও সুরক্ষা আইন-২০১৮’ চূড়ান্ত করা হয়েছে।সোমবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত ‘চিকিৎসাসেবা ও সুরক্ষা আইন-২০১৮’ এর খসড়া পর্যালোচনা সভায় আইনটি চূড়ান্ত করা হয়। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এতে সভাপতিত্ব করেন।এই আইন প্রণীত হলে চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও স্বাস্থ্যসেবা গ্রহীতার সুরক্ষা প্রদান এবং দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করা হবে। শিগগিরই

পেঁপের বীজে যতো গুণ

  

পিএনএস ডেস্ক: জনপ্রিয় একটি ফলের নাম পেঁপে। কাঁচা এবং পাকা দুইভাবেই খাওয়া যায় পেঁপে। ভাটামিন ও মিনারেল সমৃদ্ধ পেঁপের বীজেও রয়েছে ভরপুর পুষ্টিগুণ। পেঁপে খাওয়ার পরে আমরা সাধারণত এর বীজ ফেলে দেই। পেঁপের বীজ ফেলে না দিয়ে খেলে মিলবে অনেক উপকার। চলুন জেনে নেই-পেঁপের বীজে রয়েছে প্রোটিওলাইটিক উৎসেচক, যা দেহে বাসা বাধা নানা ক্ষতিকর জীবাণু নাশ করে। দেহে প্রোটিন বিপাকে সাহায্য করে, পাশাপাশি, ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ থেকে রক্ষা করে।শরীরের ভেতর প্রোটিন ফাইবারকে ভাঙতে এবং হজম প্রক্রিয়াকে অনেক দ্রুত করে

প্রাণ জুড়াতে আনারসের শরবত

  

পিএনএস ডেস্ক: গরম পড়তে শুরু করেছে। প্রচণ্ড গরমে একগ্লাস ঠান্ডা শরবতের জন্য হাঁসফাঁস করে আমাদের প্রাণ। তবে এ সময় বাইরে থেকে কেনা শরবত না খাওয়াই ভালো। কারণ তাতে জীবাণুর মাধ্যমে নানা পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হওয়ার ভয় থাকে। তাই ঘরেই তৈরি করুন পছন্দের শরবত। রইলো আনারসের শরবত তৈরির রেসিপি-উপকরণ: দেড় কাপ আনারস কুচানো, পুরো একটা লেবুর রস, এক মুঠো পুদিনা পাতা, এক টেবিল চামচ চিনি, এক কাপ আইস কিউব, এক কাপ ঠান্ডা পানি।প্রণালি: ব্লেন্ডারে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন সব উপকরণ। যতক্ষণ না মিহি হয় ততক্ষণ

মারাত্মক এসিড ও রাসায়নিক মেশানো হচ্ছে সিগারেটে!

  

পিএনএস ডেস্ক:আগের চেয়েও অনেক বেশি বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে সিগারেট। সিগারেট উৎপাদনে নানা কারসাজি এবং বিপজ্জনক রাসায়নিক উপাদান মেশানো হচ্ছে। যা স্বাস্থ্যের পক্ষে মারাত্মকভাবে ক্ষতিকর বলে জানাচ্ছে ব্রিটেনের দ্যা ক্যাম্পেন ফর টোব্যাকো-ফ্রি কিট নামের একটি দাতব্য সংস্থা।সংস্থাটির তরফে জানানো হয়েছে, ধূমপায়ীদের আসক্তি আরও বাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে তামাকের ধোঁয়া যাতে সহজে টানতে পারা যায় সেজন্য বিভিন্ন সিগারেট প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলি বর্তমানে নানা রাসায়নিক উপাদান মেশাচ্ছে।যদিও আগে সিগারেট

দেহের এই অঙ্গগুলি কখনও হাত দিয়ে স্পর্শ করবেন না

  

পিএনএস ডেস্ক : মানুষের দেহ খুব সেনসেটিভ৷ যখন তখন যত্রতত্র হাত দেওয়া সমীচিন নয়৷ বাড়ির বড়োরা একথা হামেশাই বলে থাকেন৷ কিন্তু এবার এই একই কথা বললেন ডাক্তাররা৷ জানালেন, দেহের কয়েকটি অংশ কখনই যখন তখন হাত দিয়ে স্পর্শ করা উচিত নয়৷মুখব্রণর সমস্যা থাকলে কখনওই মুখ হাত দিয়ে ছোঁয়া উচিত নয়৷ এমনকী মুখ ধোয়ার আগেও সতর্কতা অবলম্বন করা জরুরি৷ মুখ ধোয়ার আগে ভালো করে হাত ধুয়ে নিন৷ কারণ হাত থেকেই বেশিরভাগ সময় জীবাণু ছড়িয়ে পড়ে৷ তা থেকে রোগ হওয়া অসম্ভব নয়৷চোখসারাদিনে বেশ কয়েকবার আমাদের

করলার রস ও মধু একসঙ্গে খেলে কী হয়?

  

পিএনএস ডেস্ক:আপনি কি জানেন, করলার রস ও মধু একসঙ্গে খেলে প্রায় সাত ধরনের সমস্যা প্রতিরোধ করা যায়? কেবল তিন টেবিল চামচ করলার রস ও দুই টেবিল চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে খালি পেটে খেলে এই উপকার পাবেন। করলার রস ও মধু একসঙ্গে খাওয়ার গুণগুলো জানিয়েছে জীবনধারাবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই।১. ডায়াবেটিস কমায়করলার রস ও মধুর মধ্যে রয়েছে শক্তিশালী এনজাইম। এই মিশ্রণটি রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে দিতে সাহায্য করে। এতে ডায়াবেটিসের লক্ষণগুলো কমে।২. শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করেকরলার

কোমরে কার ছবি আঁকলেন সুস্মিতা!

  

পিএনএস ডেস্ক: সাবেক মিস ইউনিভার্স সুস্মিতা সেন বলিউডের সিনেমা জগত থেকে বহুদিন ধরে দূরে রয়েছেন। তবে তার ভক্তদের কথা ভেবে মাঝে মধ্যেই সোশ্যাল সাইটে ছবি ও ভিডিও পোস্ট করতে দেখা যায় সুস্মিতাকে। কখনও নিজের ছবি, কখনও বা তার দুই মেয়ের বিভিন্ন ছবি বা বিভিন্ন ভিডিও পোস্ট করে থাকেন তিনি। সম্প্রতি, নিজের ইনস্টা প্রোফাইলে তিনি যে ছবি পোস্ট করেছেন তা নিয়ে রীতিমত শোরগোল পড়ে গেছে।নিজের কোমরে ট্যাটু করিয়েছেন সুস্মিতা, যাতে ফুটে উঠেছে বাঘের ছবি। সেই ছবিই নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। প্রথম ছবিতে দেখা

স্ট্রবেরির উপকারীতা

  

পিএনএস ডেস্ক: উজ্জ্বল লাল রং, স্বাদ, গন্ধের জন্য বিখ্যাত স্ট্রবেরি। জ্যাম, মিল্কশেক, চকোলেট, আইসক্রিম প্রভৃতিতে স্ট্রবেরি ব্যবহার করা হয়। স্বাদে, গন্ধে অতুলনীয় এই ফল শুধুমাত্র জিভের স্বাদই মেটায় না। পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন উপকারে লাগে। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে পলিফেনল, ডায়টারি ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম এবং ভিটামিন। কেন প্রত্যেকদিনের খাবার তালিকায় অবশ্যই স্ট্রবেরি রাখবেন, জেনে নিন-স্ট্রবেরিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি এবং ফাইটোকেমিক্যালস রয়েছে। যা, আমাদের মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন ভালো

হৃদরোগে দই খান

  

পিএনএস ডেস্ক: দই খেতে ভালোবাসেন অনেকেই। দই শুধু মজাদার খাবারই নয়, এটি স্বাস্থ্যকরও বটে। খাদ্যতালিকায় দুগ্ধজাত এ উপাদানটি নিয়মিত রাখলে আপনি বেশ কিছু স্বাস্থ্যগত সুবিধা পাবেন। সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, সপ্তাহে অন্তত দু বারের বেশি সময় দই খেলে হৃদরোগ এবং স্ট্রোক প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে।তথ্যে জানা যাচ্ছে, কার্ডিওভ্যাসকুলার রোগের বড় একটা কারণ হল উচ্চ রক্তচাপ এবং হাইপার টেনশন। আমেরিকান জার্নাল অফ হাইপার টেনশনে প্রকাশিত হয়েছে যে, দই খেলে কার্ডিওভ্যাসকুলার রোগের প্রকোপ অনেক কমে

Developed by Diligent InfoTech