ইসলাম

লোক দেখানো ইবাদত আল্লাহ পছন্দ করেননা

  

পিএনএস ডেস্ক : শুধু আল্লাহকে রাজিখুশির উদ্দেশ্যেই ইবাদত করতে হবে। যে ইবাদতে রিয়া (লোক দেখানো) থাকে সেই ইবাদত আল্লাহর কাছে গ্রহণযোগ্য হয় না। তথাপি আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য ইবাদত চালিয়ে যেতে হবে।নির্জনের ইবাদতে রিয়া থাকার সম্ভাবনা একেবারেই কম। শুধু আল্লাহ প্রত্যক্ষ করছেন মনকে এমন বশে আনতে নির্জনে ইবাদত করতে হবে। নির্জন স্থানে ইবাদতে মনের মাঝে একপ্রকার সন্তুষ্টি থাকে যে আল্লাহ ছাড়া অন্য কেউ এ ইবাদত দেখছে না। তাই শুধু আল্লাহকে পেতেই এ ইবাদত।সা‘দ ইবনে আবী অক্কাস (রা.) বলেন, আমি আল্লাহর রাসূল

পরকাল ভাবনায় মুমিনের মুক্তি

  

পিএনএস ডেস্ক : মানুষ মরণশীল। প্রত্যেকেরই কঠিন এই বাস্তবতার মুখোমুখি হতে হবে। পৃথিবীর ইতিহাসে কোনো পরাক্রমশালী ব্যক্তিই মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পায়নি। তাই জীবনের এই বাস্তবতাকে স্বীকার করে নিয়ে পরকাল ভাবনা সবসময় জাগরুক রাখতে হবে। ইসলামের শিক্ষা হলো, দুনিয়ার জীবন-জীবিকা সব ঠিক রাখার পরও সবসময় পরকালকে সামনে রাখতে হবে। সবকিছুর ঊর্ধ্বে মনে রাখতে হবে, এই দুনিয়া চিরস্থায়ী নয়। প্রত্যেক প্রাণীকে একদিন না একদিন মৃত্যুর স্বাদ ভোগ করতে হবে। কারো ভেতরে পরকাল ভাবনা সক্রিয় থাকলে অনেক অন্যায়-অপকর্ম থেকে বেঁচে

দুনিয়া থেকে জান্নাতে হযরত ইদ্রিস নবীর স্থায়ী সফর ও ঘটনাবহুল পয়লা মহররম

  

পিএনএস ডেস্ক : পয়লা মহররম ইতিহাসে ঘটেছিল বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা। যেমন, হযরত ইদ্রিস নবীর (আ.) জান্নাত গমন, হযরত জাকারিয়া (আ)'র দোয়া কবুল হওয়া, মক্কায় কাফের নেতাদের পক্ষ থেকে বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)এবং তাঁর অনুসারীদের ওপর অর্থনৈতিক ও সামাজিক অবরোধ আরোপের মত কয়েকটি অতি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা।এ ছাড়াও এই দিনে সব ঘটনাকে ম্লান করে দেয়া ঘটনার মহানায়ক তথা কারবালার কালজয়ী মহাবিপ্লবের মহান নেতা ইমাম হুসাইন (আ.) তাঁর কাফেলা ও সঙ্গী-সাথীদের নিয়ে অগ্রসর হচ্ছিলেন এ বিপ্লবের অকুস্থল তথা কারবালা

সূরা মায়েদা এর রুকু ভিত্তিক মূল বক্তব্য

  

পিএনএস (মো. সোলাইমান) : প্রথম রুকু(১-৫): মানুষের জন্য হারাম করা হয়েছে মৃত্যুজীব, তা যে কোন ভাবে মৃত্যু হতে পারে, যেমন কন্ঠরুদ্ধ হয়ে বা ওপর থেকে পড়েগিয়েও হতে পারে,এবং রক্ত, শূকরের গোশত অথবা হিংস্রপ্রাণী চিরে ফেলেছে এমন জীব ও দেব দেবির নামে যবেহ করা পশুও তোমাদের জন্য হারাম,তবে আল্লাহর নামে যেসব পশু যবে করছো তা তোমাদের জন্য হালাল।এছাড়া জুয়া খেলা তোমাদের জন্য হারাম, অত:এব তোমরা ফাসেকী ত্যাগ করে আল্লাহর আনুগত্য কর, আল্লাহ ক্ষমাশীল ও অনুগ্রহ কারী।দিতীয় রুকু(৬-১১): হে ঈমানদারগণ! যখন তোমরা নামাজের

আফগানিস্তানে ৫০০ কেজি ওজনের কোরআন!

  

পিএনএস ডেস্ক : সাধারণত কোরআন পুস্তাকারের হয়ে থাকে। তবে বাহ্যিক আকারে বৈচিত্রপূর্ণ কোরআন রয়েছে দুনিয়ায়। মদিনা শরিফের আল-কোরআন মিউজিয়ামে কোরআনের এমনই কিছু দুর্লভ কপি সংরক্ষিতে আছে। মিউজিয়ামটি মসজিদে নববির আঙিনায় ৫ নম্বর গেটের কাছে অবস্থিত। প্রাচীন কোরআনের কপি ও পাণ্ডুলিপি সংরক্ষণের জন্য ওই মিউজিয়ামে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা রয়েছে।মিউজিয়ামে হরিণের চামড়ায় লিখিত একটি কোরআনের কপি রয়েছে। আরো আছে কাপড়ে স্বর্ণের সুতো দিয়ে তৈরি কোরআন। তার চেয়ে বড় কথা হলো, স্বর্ণের কালিতে হস্তাক্ষরে লিখিত ১৫৪ কেজি ওজনের

পবিত্র আশুরার চাঁদ দেখা কমিটির সভা সোমবার

  

পিএনএস ডেস্ক : পবিত্র আশুরার তারিখ নির্ধারণ ও মহররম মাসের চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনা এবং এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণে আগামীকাল সোমবার সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররমের সভাকক্ষে এ সভা বসবে।আজ রোববার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করবেন ধর্মমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।বাংলাদেশের আকাশে কোথাও পবিত্র মহররম মাসের চাঁদ

সূরা আল মায়েদা নাযিলের পেক্ষাপট

  

পিএনএস (মো. সোলাইমান ) : সূরা আল মা’য়েদাহ মাদানী আয়াত-১২০ রুকু-১৬নামকরণ :আয়াতে উল্লেখিত “মা-য়েদাহ” শব্দ থেকে এ নামকরণ করা হয়েছে। কুরআনের অধিকাংশ সূরার নামের মতো এ সূরার নামের সাথেও এর আলোচ্য বিষয়বস্তুর তেমন কোন সম্পর্ক নেই। নিছক অন্যান্য সূরা থেকে আলাদা হিসেবে চিহ্নিত করার জন্যই একে এ নামে অভিহিত করা হয়েছে।নাযিলের সময়কাল :হোদাইবিয়ার সন্ধির পর ৬ হিজরীর শেষের দিকে অথবা ৭ হিজরীর প্রথম দিকে এ সূরাটি নাযিল হয়। সূরায় আলোচ্য বিষয় থেকে একথা সুস্পষ্ট হয় এবং হাদীসের বিভিন্ন

ইসলামের দৃষ্টিতে স্বামীর প্রতি স্ত্রীর অধিকার কতটুকু?

  

পিএনএস ডেস্ক :একজন স্ত্রী যেমন স্বামী ছাড়া পরিপূর্ণ নন তেমনি একজন স্বামীও স্ত্রী ছাড়া পরিপূর্ণ নন। সৃষ্টিগতভাবেই আল্লাহ মহান এদের একজনকে অপরজনের সহায়ক এবং মুখাপেক্ষী হিসেবে সৃষ্টি করেছেন। একজন আদম দ্বারা কখনোই পরিপূর্ণতা লাভ করত না এই ধরাধাম। একজন হাওয়ার আগমন ঘটিয়েছিলেন তাই আল্লাহ মহান। একজন স্ত্রীর দায়িত্বে স্বামীর যেমন কিছু হক বা অধিকার রয়েছে, একজন স্বামীর দায়িত্বেও তেমনি স্ত্রীর কিছু হক বা অধিকার রয়েছে। স্ত্রী স্বামীরই অংশ সূরা নিসার যে আয়াতটি বিবাহের খোতবায় তেলাওয়াত করা হয়, সে আয়াতে

আরাফতের ময়দানে জিয়া গাছ (নিম গাছ)

  

পিএনএস (আজাহার আলী সরকার) : শুনেছি কিয়ামতের পর আরাফাতের ময়দানে সব মানুষকে সমাবেত করা হবে। সেই ময়দানে সমবেত সব্বাই তখন কি বাংলাদেশের রাষ্ট্রনায়ক জিয়াউর রহমানের রোপন করা জিয়া সাজারাহ বা জিয়াগাছ, ওরফে নিমগাছ নিশ্চয়ই দেখতে পাবে? সেই জিয়াগাছ নিশ্চয়ই এই দেশের অনেকের মনে ঈর্ষার আগুন জ্বেলে দেবে! কেউ কেউ হয়তো সেসব গাছ ধ্বংস করে ফেলার আক্রোশে ফুঁসতে থাকবেন। কিন্তু তখন আক্রোশই সার! কারো কিছু করার ক্ষমতা থাকবে না। আরাফাতের ময়দানে কত যুগ প্রেসিডেন্ট জিয়ার লাগানো নিমগাছ টীকে থাকবে জানি না কিন্তু

নবীজির সঙ্গে জান্নাতে যেতে যে দোয়াটি পড়বেন!

  

পিএনএস ডেস্ক : আল্লাহু তার বান্দাকে এই পৃথিবীতে পাঠানোর পর, আমাদের দিয়েছেন সঠিক দিক নির্দেশনা। এই দিক নির্দেশনা পালন করলে তবে না আমাদের জন্য পরকালে থাকবে আরাম আয়েশের জন্য জান্নাত। আসুন, জেনে নিই এমন একটি দোয়া, যে দোয়া পাঠ করলে আমাদের প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মাদ (স.) সঙ্গে জন্নাতে যেতে পারি।ফজিলত:হজরত মুনজির (রা.) বলেন, আল্লাহর রাসুল (স.) বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রতিদিন সকালে এ দোয়াটি পড়বে আমি তার দায়িত্ব নিলাম, কেয়ামতের দিন আমি তাকে তার হাত ধরে জান্নাতে নিয়ে যাব। (মুজামে কাবির-৮৩৮ মুজামুস

Developed by Diligent InfoTech