বেনাপোলে বেড়েছে পুষ্টিগুন ভরা ভুট্টা চাষ: লাভবান চাষী

  

পিএনএস, বেনাপোল প্রতিনিধি : অধিক লাভের ফসল হিসাবে গত চার বছরের ব্যবধানে যশোরের শার্শা ও বেনাপোলে বেড়েছে ডাল জাতীয় শস্য পুষ্টিগুনে ভরা সুস্বাদু ভুট্টা চাষ। চলতি মৌশুমে ভট্টার বাম্পার ফলনের আশা করছেন চাষীরা। ভুট্টাক্ষেত পরিচর্র্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। গত বছরে সাড়ে ৫’শ একর জমিতে ভুটার আবাদ হলেও চলতি মৌসুমে উপজেলায় সাড়ে ৮’শ একর জমিতে হয়েছে ভুট্টা চাষ। ফলন ও দাম ভাল পাবেন আশা কৃষকের। ভুট্টার আটা ছাতু হিসাবে ব্যবহার ও কাচাভুট্টা পুড়িয়ে খাওয়াসহ পল্টি খাদ্য হিসাবে চাহিদা বাড়ছে ব্যাপক। ফলে লাভবান হচ্ছে চাষীরা।

কায়বা ইউপি চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহম্মেদ টিংকু বলেন, ধান, পাট, আখসহ বিভিন্ন প্রকার চাষে লোকসান গুনছিল এলাকার চাষীরা। পরে উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের পরামর্শ ও সহযোগিতায় মাঠের পর মাঠ জুড়ে ছড়িয়ে দিচ্ছেন ভুট্টা চাষ। দাম ও ফলন ভাল পাওয়ায় আগ্রহ বাড়ছে চাষীদের। সহযোগিতা দিচ্ছেন তারা।

রাজনগর-শার্শার ভুট্টা চাষী ইসমাইল হোসেন বলেন, ৫ বিঘা জমিতে ৩০ হাজার টাকা খরচ করে ১ লাখ টাকার ভুট্টা বিক্রির আশা করেন তিনি। তার দেখে অনেক চাষী শুরু করেছেন ভুট্টা চাষ।

গোগা কায়বা শার্শা রাজনগর ব্লকসহ উপজেলায় ৮’শ বিঘা জমিতে হয়েছে ভুট্টার চাষ। দাম ও ফলন ভাল পাওয়ায় বাড়ছে চাষ লাভবান হচ্ছে চাষী। প্রশিক্ষণ পরামর্শ ও সহযোগিতা দিচ্ছেন উপজেলা কৃষি অদিদপ্তর এমনটাই জানান কৃষি কর্মকর্তা হীরক কুমার সরকার।

প্রতিমন ভুট্টা স্থানীয় বাজারে বিক্রি হয় সাড়ে ৫’শ থেকে ৭’শ টাকা। প্রতি বিঘায় ফলে ২৮ থেকে ৩০মন ভুট্টা শার্শা রাজনগরে এক কৃষকই ১৫ বিঘা জমিতে করেছেন ভুট্টার চাষ। ধরছে ফুল ও ফল। লাভের আশার বুক বাধছেন চাষীরা। বীজ সারসহ সরকারি প্রনোদনা দেওয়ায় কৃষকদের মধ্যে চাষে আগ্রহ বাড়ছে বলে জানান শার্শা ,উপসহকারি কৃষি অফিসার সুকেন্দু কুমার মন্ডল।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech