মাত্র ৭ মিনিটেই হত্যা করা হয় খাশোগিকে!

  

পিএনএস ডেস্ক : সৌদির ভিন্নমতালম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগির নিখোঁজের ঘটনায় ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিকভাবে চাপের মুখে সৌদি আরব। তাকে হত্যা করা হয়েছে কিনা এই নিয়ে চলছে বিতর্কের ঝড়। তবে তুরস্কের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে ৭ মিনিটেই হত্যা করা হয় খাশোগিকে।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে তুর্কি সূত্রের বরাত দিয়ে প্রকাশ করা হয়, দি আরবের প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে মাত্র সাত মিনিটে হত্যা করা হয়।

তুরস্কের সূত্র থেকে জানা যায়, ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পরপরই কোনোরকম জিজ্ঞাসাবাদ ছাড়াই কনস্যুল জেনারেলের অফিস থেকে পাশেই একটি পড়ার টেবিলের দিকে নিয়ে যাওয়া হয় খাশোগিকে। হঠাৎই ঘটনার এক সাক্ষী তার কান্না শুনতে পান।

সূত্রটি আরও জানায়, হত্যায় ১৫ সদস্য দলের একজন ছিলেন সৌদি জেনারেল সিকিউরিটি বিভাগের ফরেনসিক এভিডেন্সের প্রধান সালাহ মুহাম্মদ আল-তুউবিগি। যিনি ঘটনার একদিন আগে ব্যক্তিগত প্লেনে আঙ্কারা পৌঁছান।

সূত্রের সংগৃহীত রেকর্ডিং থেকে জানা যায়, তুউবিগি গবেষণার টেবিলেই খাশোগির শরীর টুকরো করতে শুরু করেন। এ সময় তুউবিগি হেডফোনে গান শোনেন এবং দলের অন্য সদস্যদেরও একই কাজ করতে বলেন।

তুর্কি সংবাদপত্র সাবাহতে অডিওটির একটি সংস্করণও প্রকাশ করা হয়েছে।

অন্যদিকে মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) জামাল খাশোগির নিখোঁজ ইস্যুতে সৌদির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পোম্পেও।

বৈঠকে খাশোগি ইস্যুতে সৌদি বাদশা একটি পূর্ণ ও স্বচ্ছ তদন্তের প্রতিশ্রুতি দেয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রী পোম্পেও এ ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য, সৌদি রাজতন্ত্রের বিরোধিতাকারী খাশোগি ২০১৭ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছা-নির্বাসনে ছিলেন। গত ২ অক্টোবর ব্যক্তিগত কাগজপত্র আনার জন্য তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেট গিয়েছিলেন তিনি। এরপর তাকে আর দেখা যায়নি। যদিও ধারনা করা হয়েছিল যে সেখানেই তাকে খুন করা হয়েছে তবে কনস্যুলেট কর্তৃপক্ষের দাবি কাজ সেরেই বের হয়ে গেছেন খাশোগি।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech