পর্নো সাইটে চাকরির প্রস্তাব পেলেন রাজপরিবারের বধূ মেগান!

  

পিএনএস ডেস্ক : রাজ পরিবারে গণ্ডীতে থাকতে চান না বলে আগেই জানিয়েছেন তারা। আর তাই ব্রিটিশ রাজ পরিবারের ছোট ছেলে প্রিন্স ও তার স্ত্রী মেগান মার্কেল সপ্তাহ খানেক ধরেই সংবাদের শিরোনামে।

সম্প্রতি ডিউক অব সাসেক্স ও ডাচেস অব সাসেক্সের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করে নিজেরা কাজ করবেন বলে ঘোষণা দেন এই দম্পতি। এরপরই মার্কিন অভিনেত্রী মেগানের কাছে এলো এক অদ্ভুত প্রস্তাব।

যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম মেট্রো ডট কো জানিয়েছে, প্রাপ্তবয়স্কদের ওয়েবসাইট ‘ইয়োর পর্ন’-এর তরফ থেকে চাকরির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে মেগানকে। রাজপরিবারের বধূকে একটি চিঠি লিখেছেন ওয়েবসাইটের ভাইস প্রেসিডেন্ট।

ওই চিঠিতে তিনি লিখেছেন, মেগান রাজপরিবারের গণ্ডি পেরিয়ে তাদের সাইটে কাজ করুক। তাদের সাইট জনকল্যাণকর কাজের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। কীভাবে তাদের উন্নতি করা যায়, তা খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার প্রস্তাব করা হয় তাকে।

ওয়েবসাইটের কর্ণধার চার্লি জানান, তার সাইটটি অনেক সংস্থাকে সাহায্য করে। তবে সাইটি কারও সাহায্য নেয় না।

তিনি আরও জানান, মেগান পুরোনো ভাবনা ভেঙে সাইটটির জনহিতকর পদক্ষেপকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন বলে তার আস্থা রয়েছে।

এদিকে রাজপরিবার বা প্রিন্স হ্যারির স্ত্রী মেগানের পক্ষ থেকে এ নিয়ে কিছু জানানো হয়নি।

ব্রিটেনের রাজপরিবার অত্যন্ত রক্ষণশীল হিসেবেই পরিচিত। সেই পরিবারের সব সদস্য নিজস্ব আভিজাত্যের নিয়মে চলাফেরা করেন। এর আগে প্রিন্স উইলিয়াম ও হ্যারির মা ডায়না রাজপরিবারের নিয়ম ভেঙে চলাফেরা করেন। এখন ডায়নার পথেই হাঁটছেন তার ছেলে হ্যারি ও পুত্রবধূ মেগান।

রাজপরিবারের বাঁধাধরা নিয়মে খাপ খাওয়াতে না পেরে সাধারণদের মতো স্বাধীন চলাফেরা করতেই রাজপরিবার ত্যাগ করার ঘোষণা দেন তারা। আর্থিকভাবে স্বনির্ভর হতে চাইছেন বলেও জানিয়েছেন তারা।

এক বিবৃতিতে হ্যারি-মেগান দম্পতি বলেছেন, আগামী দিনগুলোতে তারা বছরের কিছুটা সময় ব্রিটেনে এবং বাকিটা উত্তর আমেরিকায় কাটানোর পরিকল্পনা করেছেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech