শিডিউল বিপর্যয়ে চলছে ট্রেন, নারী ও শিশুদের ভোগান্তি চরমে

  

পিএনএস ডেস্ক : ঈদের আগের দিনে ধারাবাহিকভাবে ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় ঘটছে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে। সময়মত স্টেশন থেকে ছাড়ছে না কোনো ট্রেনই। সাধারণ যাত্রী বিশেষ করে নারী ও শিশুদের ভোগান্তি চরমে। এতে করে সাধারণ যাত্রীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সকাল থেকেই কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে শিডিউল বিপর্যয়ের মধ্যদিয়েই চলছে ট্রেন। প্রতিটি ট্রেনই ছাড়ছে ৩০ মিনিট থেকে দেড় ঘণ্টা দেরিতে। তবে রাজশাহীগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেস ছাড়ল প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পর।

আজ প্রথম ট্রেন ধূমকেতু এক্সপ্রেস ভোর ৬টায় ছাড়ার কথা ছিল, কিন্তু সকাল সাড়ে ৮টার মধ্যেও কমলাপুরে আসতে পারেনি ট্রেনটি। খুলনার সুন্দরবন এক্সপ্রেস সকাল ৬টা ২০ মিনিটের বদলে সকাল ৭টা ৪০মিনিটে স্টেশন ছেড়ে যায়।

একই অবস্থা রংপুর এক্সপ্রেসেরও, এটির ছাড়ার কথা সকাল ৯টায়। বেলা ১১টা পর্যন্ত আসেনি। এই ট্রেন ছাড়ার পরবর্তী সময় দেওয়া হয়েছে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিট।

লালমনিরহাট ঈদ স্পেশাল ট্রেন ছাড়ার কথা সকাল সোয়া ৯টায়। এই ট্রেন দুপুর ২টায় ছাড়ার সময় দিয়েছে রেলওয়ে।

এ ছাড়া তিস্তা এক্সপ্রেস ৩০ মিনিট, চট্টগ্রামের মহানগর প্রভাতী ৩৫ মিনিট দেরিতে ছেড়েছে। একতা এক্সপ্রেস সকাল ১০টার পরিবর্তে সাড়ে ১০টায় ছেড়ে গেছে। কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস বেলা সাড়ে ১০টায় ছাড়তে পারেনি।

এক যাত্রী বলেন, সকাল সকাল স্টেশনে এসেছি, কিন্তু দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করায় আমার মা অসুস্থ হয়ে পড়েন। সড়কপথে ভোগান্তির ভয়ে ট্রেনের টিকিট কেটেছি, কিন্তু এখানেও ভোগান্তি।

শিডিউল বিপর্যয়ের ব্যাপারে রেলওয়ের স্টেশন ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী সাংবাদকিদের জানান, ট্রেন স্টেশনে আসতে দেরি করায় একটু দেরি হচ্ছে, কমলাপুর থেকে আমাদের কোনো দেরি হচ্ছে না।

পিএনএস /জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech