মাদারীপুরে ঈদ শপিংয়ের কথা বলে ডেকে নিয়ে স্ত্রীকে হত্যা

  

পিএনএস ডেস্ক : মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বদরপাশা ইউনিয়নের শংকরদী গ্রামের কুমার নদের পাড় থেকে শারমিন আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে রাজৈর থানা পুলিশ। আজ শনিবার দুপুর ২টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আকাশ শেখকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনতা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১১ মাস আগে শিবচর উপজেলার পশ্চিম চর কামারকান্দি গ্রামের আইনাল ভূঁইয়ার মেয়ে শারমিনের সাথে রাজৈর উপজেলার পশ্চিম সরমঙ্গল গ্রামের শাহ জালাল শেখের ছেলে আকাশ শেখের সাথে বিয়ে হয়। গতকাল শুক্রবার সকালে ঈদের কেনাকাটার কথা বলে আকাশ শেখ শারমিনকে টেকেরহাট বন্দরে আসতে বলে। তারপর থেকেই নিখোঁজ হয় শারমিন। অনেক খোঁজাখুঁজির পরে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয় জনগনের সহায়তায় উপজেলার শংকরদী গ্রামের কুমার নদের পাড় থেকে আজ শনিবার দুপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে বাবার বাড়ির লোকজন ঘটনাস্থলে এসে শারমিনের লাশ শনাক্ত করে। স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আকাশ শেখকে স্থানীয় জনতা গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

শারমিনের ভাই সিরাজুল ইসলাম ভূঁইয়া জানান, শারমিনকে তার স্বামী ঈদের বাজার করার কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। আমি আমার বোন হত্যার বিচার চাই। রাজৈর থানার ওসি খোন্দকার শওকত জাহান জানান, শারমিন নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে মাদারীপুর মর্গে পাঠিয়েছি।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন