চিত্র-বিচিত্র

এই রহস্যময় জুতা গুলো নিজে নিজেই হেঁটে আসে!

  

পিএনএস ডেস্ক : হেঁটে হেঁটে আসে জুতা। এই ঘটনার কারণ কেউ ধরতেই পারছে না। রহস্যটা রয়েই যাচ্ছে।মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ছোট্ট শহর গ্র্যানবি। শহরের রাস্তার মাঝখানে রয়েছে জুতো! কিন্তু কার? কেন? গ্র্যানবির আমহার্স্ট রোড ও আমহার্স্ট স্ট্রিটের মাঝে সুন্দর বেশ কয়েকটি বাড়ি। তার সামনের রাস্তায় মূলত এই ঘটনাগুলো হচ্ছে।রাস্তার মাঝখানে মাঝে মাঝেই দেখা যাচ্ছে কয়েক জোড়া জুতা। মানুষ তো জায়গাটাকে শু আইল্যান্ড নামই দিয়ে দিয়েছেন। কখনো পাঁচ-ছটা, আবার কখনও ১০-১২টা জুতো। কিন্তু এরকম করার মানে কেউ বুঝে উঠতে

অদ্ভুত এক চুম্বন দৃশ্য!

  

পিএনএস ডেস্ক: গুগল ম্যাপ। হাতের মোবাইল ফোনে এটি খুললেই হয়ে যায় মুশকিল আসান। তবে গুগল ম্যাপে এবার যেন এক অন্য দৃশ্য। দম্পতির চুমু খাওয়ার দৃশ্য ধরা পড়ল গুগল ম্যাপে। এক দম্পতির অজান্তেই তাদের চুম্বনের দৃশ্য ধরা পড়েছে। কিন্তু খুব অন্যরকম লাগছে তাদের। ভারী অদ্ভুত। গুগল ম্যাপে দেখে মনে হবে, সমুদ্র সৈকতে হালকা মেজাজে বসে রয়েছেন তারা। চুমু খাচ্ছেন পরস্পরকে। গ্রে টি শার্ট পরা এক নারী, চোখে সানগ্লাস। সঙ্গীর দিকে চেয়ে রয়েছেন, ভালবেসেই। কিন্তু ম্যাপে তা কেমন যেন দেখাচ্ছে। তাদের পরস্পরের হাত-পা যেন

এখন থেকে বাইক চলবে ভদকায়!

  

পিএনএস ডেস্ক :পেট্রোল কিংবা অন্য কোন প্রচলিত জ্বালানি তেলে নয়, মোটরবাইক চলবে ভদকায়! শুনতে অবাক লাগলেও এমনই এক বাইক আবিস্কার করে ফেলেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মন্টনার ব্যবসায়ী রায়ান মন্টেগোমারি।বছরখানেক আগে একটি পরিত্যক্ত ফাঁকা মাঠে বিকল অবস্থায় ইয়ামহার XS650 মডেলের বাইকটি খুঁজে পান রায়ান। সেখান থেকে তিনি বাইকটিকে নিয়ে যান নিজের বাড়িতে। আসলে ৪১ বছর বয়সি রায়ান উৎকৃষ্ট মানের মদ প্রস্তুতকারক। তিনি খুব ভাল করেই জানতেন ভদকা তৈরির পর যে বর্জ্য পদার্থ অবশিষ্ট থাকে তা জ্বালানি হিসেবে খুব ভাল

বিরিয়ানির জন্য স্বামীকে ছেড়ে চলে গেলেন স্ত্রী!

  

পিএনএস ডেস্ক : স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের মাঝে ভালোবাসা যেমন থাকে গাঢ় তেমনই বোঝাপড়াও থাকে দুর্দান্ত। কিন্তু তাই বলে কি সবার ক্ষেত্রে? তা হয়তো নয়। তাতেই কি? সম্পর্ক সুন্দর রাখতে স্বামী ও স্ত্রী উভয়পক্ষকেই দিতে হয় ছাড়। ‘সেক্রিফাইস ইস দ্য বেস্ট পলিসি ফর অ্যানি ক্যাপল’- এ সূত্রটা যারা ভুলে যান তাদেরও সর্বনাশ!এবার সেই সর্বনাশ দেখলেন ভারতের এক স্বামী। যেখানে স্ত্রী স্বাদের বিরিয়ানির গন্ধ নাকেই নিতে পারেন না সেখানে স্বামীর প্রিয় খাবার বিরিয়ানি। এখন কি করা? কোনও উপায়ান্তর না দেখে স্ত্রী স্বামীর ঘর

কুকুরের ভয়ে পালালো চিতাবাঘ (ভিডিও)

  

পিএনএস ডেস্ক :স্বাভাবিক ভাবে একটি কুকুরের পক্ষে কোনভাবেই সম্ভব নয় চিতা বাঘের সঙ্গে লড়াইয়ে পেরে ওঠা। তবে এমনটাই হতে দেখিয়েছে মেঠোপথের ওপর আরামসে ঘুমিয়ে থাকা একটি কুকুর। ঠিক যেন এক অসতর্ক মুহূর্তে একটি চিতা আক্রমণ করে বসে তার ওপর।কিন্তু চিতার থাবা আঘাত হানার ঠিক আগ মুহূর্তে উঠে দাঁড়িয়ে তা প্রতিহত করে কুকুর। এমন অপ্রত্যাশিত প্রতিক্রিয়ায় ভয় পেয়ে যায় চিতা। হতভম্ব হয়ে বুঝতে চেষ্টা করে পরিস্থিতি। অন্যদিকে অনবরত ‘ঘেউ’ ‘ঘেউ’ করতে থাকে কুকুর যতক্ষণ না পর্যন্ত দৃষ্টিসীমা থেকে চিতার প্রস্থান

সন্ধান মিলল ১৩ বছর আগে চুরি সেই ‘যাদুর জুতো’র!

  

পিএনএস ডেস্ক : ১৩ বছর আগে চুরি হয়েছিল এক জোড়া 'যাদুর জুতো'।বিশ্বখ্যাত ক্লাসিক মিউজিক্যাল চলচ্চিত্র ‘দ্য উইজার্ড অব অজ’-এ প্রধান চরিত্রে অভিনয়শিল্পী পরেছিলেন এই জুতো।ডরোথির ‘রুবি স্লিপারস’ ছিল দ্য উইজার্ড অব অজ চলচ্চিত্রের খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। গল্পে এর ছিল যাদুকরী ক্ষমতা।সেই জুতোর সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই।২০০৫ সালে ওই জুতো জোড়া যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা জাদুঘর থেকে চুরি হয়েছিল। সেটি জাদুঘরের জানালা ও কাচের কেস ভেঙে নিয়ে যাওয়া হয়।এই জুতো জোড়া

টয়লেটে গোপন ক্যামেরা...!

  

পিএনএস ডেস্ক : দক্ষিণ কোরিয়ার নারীরা নীল ছবির ব্যবসায়ীদের দাপটে বিষিয়ে উঠেছে।ঘরে-বাইরে কোথাও যেন শান্তি নেই। কেউ জানে না কোথায় বসানো হয়েছে গোপন ক্যামেরা। টয়লেট থেকে শুরু করে পাবলিক যানবাহন সর্বত্রই নীল ছবির ব্যবসায়ীরা গোপনে ক্যামেরা পেতে রেখেছেন। সম্প্রতি দেশটির রাজধানী সিউলে টয়লেটে এবং পোশাক পরিবর্তনের ঘরে গোপন ক্যামেরা ধরার অভিযান চালানো হচ্ছে। দেশটিতে এই গোপন ক্যামেরা একটি ভয়াবহ আতঙ্কে রূপ নিয়েছে। লুকিয়ে রাখা এসব ক্যামেরায় ধারণ করা ভিডিও অনুমতিবিহীনভাবে অনলাইনে ‘স্পাই ক্যাম পর্ন’ নামে

মাংস প্রতি কেজি ২৬৭২ টাকা আর আলু ৫৬২!

  

পিএনএস ডেস্ক : এক কিলোগ্রাম আলুর দাম ৫৬২ টাকা। এক কিলোগ্রাম চাল ৭০২ টাকা। প্রতি কেজি গাজর ৮৪৩ টাকা। পনির ২১০৯ টাকা আর প্রতি কেজি মাংস ২৬৭২ টাকা। বাংলাদেশের বাজারে গেলে এমন আজব আকাশছোঁয়া দামের মুখোমুখি হতে হবে না আপনাকে। কিন্তু ভেনেজুয়েলার বাসিন্দাদের পড়তে হচ্ছে এমনই পরিস্থিতিতে।জানা গেছে, সেদেশে মুদ্রাস্ফীতির ভয়াবহ রাক্ষুসে থাবায় চরম দুরবস্থা সাধারণ নাগরিকদের দৈনন্দিন জীবনযাপনে। বাংলাদেশি টাকায় এখন এমনই দাম এই নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের। ভেনেজুয়েলার মুদ্রা বলিভার। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে

কেন একজনকে দেখে অন্যের হাই ওঠে?

  

পিএনএস ডেস্ক : কখনও দেখেছেন আপনি হাই তুলছেন আর আপনার পাশের ব্যক্তি হাই তোলেনি! বা আপনি ফোনে কথা বলছেন, ওপার থেকে হাইয়ের আলতো শব্দে অাপনিও হেলো বলার ঢঙে হাই তুলে প্রতিক্রিয়া জানাননি! কারও জীবনে এই ধরনের ঘটনা ঘটেনি কেউই বোধহয় হলফ করে বলতে পারবে না। কিন্তু কখনও কি ভেবেছেন কেন এমনটা হয়? হাই কেন এত ছোঁয়াচে? একজনের দেখাদেখি অন্যের হাই কেন ওঠে?সাধারণ মানুষ এর কোনও উত্তর খুঁজে পান না। অনেকে নানা যুক্তিও খাড়া করেন। তর্কও বেধে যায় মুহূর্তে। এত দ্রুত ছোঁয়াচে কিছু আছে কি না তা সত্যিই গবেষণার বিষয়। এই

কাশলেই বাঁশির শব্দ!

  

পিএনএস ডেস্ক : ছোট একটি শিশুটি কাশছে। আর কাশলেই শব্দ হচ্ছে অবিকল বাঁশির মতো। অসম্ভব কষ্ট পাচ্ছিল সেই শিশুটি। তার রোগ নির্ণয়ে নাজেহাল হয়ে পড়েন চিকিৎসকরা। শেষ পর্যন্ত আবিষ্কৃত হল চমকপ্রদ সত্যি। শিশুটির গলায় আটকে গিয়েছিল একটি ছোট্ট বাঁশি। আর তা থেকেই বিপত্তি। ঘটনাটি ভারতের নয়াদিল্লির। আন্তর্জাতিক চিকিৎসা সংক্রান্ত ওয়েবসাইট ‘দ্য নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অফ মেডিসিন’-এ প্রকাশিত হয়েছে এমনই এক ঘটনার কথা। ৪ বছরের ছোট্ট ছেলেটি নয়াদিল্লির ‘অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস’-এ আসে অসম্ভব

Developed by Diligent InfoTech