ছাত্রলীগ নেতার প্রকাশ্যে মারধরে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

  

পিএনএস ডেস্ক:অপমান সইতে না পেরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের চাপুইর গ্রামের স্কুলছাত্রী জান্নাত আক্তার লিমা আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গত রোববার সকালে নিজ বাড়িতেই সে আত্মহত্যা করে। পরে ময়নাতদন্ত শেষে সোমবার বিকেলে লিমার মরদেহ দাফন করা হয়। প্রথম দিকে বিষয়টি চাপা থাকলেও, মঙ্গলবার ঘটনাটি জানাজানি হয়। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে লিমার পরিবার।

নিহত লিমা চাপুইর আজিজুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ও ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসি মো. নুরুল হক ভূঁইয়ার মেয়ে।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি মো. উদয় খান ও তার লোকজন মিথ্যা অপবাদ দিয়ে লিমাকে প্রকাশ্যে মারধর করে। লিমার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক আছে, এই অভিযোগে ইয়াছিন নামে এক যুবককেও মারধর করা হয়।

নির্যাতিত ইয়াছিন জানান, তিনি বিবাহিত। লিমার সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক ছিল না। লিমার কাছে থাকা তার একটি সিম নিতে এসেছিলেন তিনি। এছাড়া উদয়ও তাকে আসার জন্য ফোন করে। পরে খেওয়াই এলাকায় সিম দেয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে উদয়সহ অন্যান্যরা লিমা ও তাকে মারধর করেন।

লিমার বড় ভাই রজব আলী কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, উদয় ও তার লোকজনের প্রকাশ্য মারধর ও অপমানের কারণেই লিমা আত্মহত্যা করেছে। লিমার বিরুদ্ধে তারা মিথ্যা অপবাদ দিয়েছে। তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নবীর হোসেন জানান, লিমার পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দেয়া হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech