৯ বছরের বালককে ধর্ষণ মধ্যবয়স্ক নারীর, থানায় মামলা

  

পিএনএস ডেস্ক : ৯ বছরের এক বালককে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ৩৬ বছর বয়স্ক এক নারীর বিরুদ্ধে। সম্প্রতি এমন অভিযোগে ওই নারীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কেরালায়।

রাজ্যটির পুলিশ কতৃপক্ষ জানায়, ৯ বছরের ওই শিশু বালক স্থানীয় একটি ক্লিনিকের ডাক্তারের নিকট নির্যাতনের ঘটনা খুলে বলার পরই গত সপ্তাহে ধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ পায়। এই ঘটনার পর ওই ডাক্তার সকল শিশুর অভিভাবকদের সতর্ক হতে পরামর্শ দেন। পাশাপাশি ধর্ষণের শিকার শিশু বালকের জবানবন্দী রেকর্ড করে স্থানীয় পুলিশের নিকট অভিযোগ দায়ের করেন।

শিশু বালকটির অভিযোগ, গত প্রায় এক বছর ধরে তাকে নিয়মিত ধর্ষণ করে আসছিল ওই নারী।

শিশু ও কিশোরদের বিভিন্ন বিষয়ে কাউন্সেলিং সেবা প্রদানকারী একটি সংগঠনের নাম চাইল্ডলাইন। মালাপ্পুরাম চাইল্ডলাইনের কো-অর্ডিনেটর আনোয়ান কারাক্কারান বলেন,‘আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে, বেশ কয়েক মাস ধরেই ৯ বছর বয়সী এই শিশু বালককে ধর্ষণ করে আসছিলো ওই নারী। এর ফলে বালকটি মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। অভিযুক্ত নারী সম্পর্কে ওই বালকের চাচী এবং তিনি ওই বালকের বাড়ির পাশেই থাকেন।’

স্থানীয় থেনহিপ্পালাম থানা পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর বিনু থমাস বলেন, চাইল্ডলাইনের নিকট নির্যাতিত বালকের দেয়া জবানবন্দী অনুসারে অভিযুক্ত নারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন,‘আমরা জানতে পেরেছি যে, তাদের দুই পরিবারের মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। কিন্তু এই নির্যাতনের ঘটনার পিছনে পূর্ব বিরোধের কোনো জের রয়েছে কিনা, তা তদন্তের পর জানা যাবে। পুলিশ ধর্ষণের শিকার ওই বালকের জবানবন্দী গ্রহণ করবে।’

উল্লেখ্য, দেশটিতে এমন ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও এরনাকুলাম শহরে ৯ বছর বয়সী এক বালককে ধর্ষণের অভিযোগে এক নারীকে আটক করা হয়েছিল। সেই ঘটনায় নির্যাতনের শিকার বালকটি ছিল একজন ক্যান্সার রোগী।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech