বিস্ময়কর স্ফিংক্স!

  

পিএনএস ডেস্ক : মিশরের দক্ষিণের এক প্রাচীন মন্দিরে পুরাতত্ত্ববিদরা আবিষ্কার করেছেন এক অত্যাশ্চর্য স্ফিংক্স। পিরামিডের পাহাড়াদার হিসেবে খ্যাত স্ফিংক্সটি বানানো হয়েছে বেলেপাথর দিয়ে। আসওয়ানের কম ওম্বো মন্দিরের মাটির নিচের পানি হ্রাসের এক প্রজেক্ট চলছিল। সেখানেই খননের সময় বেরিয়ে আসে মূর্তিটি।

মিশনের সুপ্রিম কাউন্সিল আব অ্যান্টিকুইটিস এর জেনারেল সেক্রেটারি ড. মোস্তাফা ওয়াজিরি জানান, স্ফিংক্সটি টোলেমাইক যুগের। খ্রিস্টপূর্ব ৩০৫ থেকে ৩০ অব্দ পর্যন্ত এ যুগের ব্যাপ্তি ছিল। ফেসবুকের একটি পোস্টে ওয়াজিরি ব্যাখ্যা করেন, মন্দিরের দক্ষিণ-পূর্ব কোণে মূর্তিটি মেলে। এর মাস দুয়েক আগেই কিং টোলেমি পঞ্চমের দুটো বেলেপাথরের মূর্তি খুঁজে পাওয়া যায়।

স্ফিংক্স এক অদ্ভুত জিনিস। এর দেহ সিংহের। কিন্তু মস্তক মানুষের। সাধারণত কোনো মমি বা সমাধি বা মন্দিরের প্রবেশদ্বারে এটা বসানো থাকে।

আসওয়ান অ্যান্টিকুইটিসের মহা পরিচালক আবদেল মোনেম সাঈদ বলেন, নতুন আবিষ্কৃত এই স্ফিংক্সটি নিয়ে বিস্তারিত গবেষণা পরিচালিত হবে।

প্রাচীন মিশরের যত জিনিস পাওয়া যায় তার মধ্যে এক রহস্যময় ও বিস্ময়কর জিনিস স্ফিংক্স। সম্প্রতি আসওয়ানের ১১২ মাইল উত্তরে লুক্সোরে রাস্তার কাজ করতে গিয়ে আরেকটি স্ফিংক্সের খোঁজ মেলে।

এমনিতেই গ্রেট স্ফিংক্স অব গিজা দুনিয়াজুড়ে বিখ্যাত। তবে লুক্সোরেও বেশ কয়েকটি ছোট ছোট স্ফিংক্স রয়েছে। আরেকটি প্রজেক্ট চলাকালীন বেরিয়ে এসেছে 'অভিশপ্ত কালো গ্রানাইট শিলালিপি সম্বলিত প্রস্তর'।

এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে পুরাতত্ত্ববিদরা একটি পিরামিডের কাছাকাছি স্থানে ৪ হাজার ৪০০ বছরের পুরনো একটি সমাধিস্থল আবিষ্কার করেন।
সূত্র: ফক্স নিউজ

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech