ম্যাসেঞ্জারে এনক্রিপশন এখনই যোগ হচ্ছে না

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রযুক্তি বিশ্লেষকদের ধারণা ছিল, এবছরই ম্যাসেঞ্জারে যোগ হবে অ্যাণ্ড-টু-অ্যাণ্ড এনক্রিপশন সুবিধা। কিন্তু ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, সুবিধা পেতে আরো একবছর অপেক্ষা করতে হবে। এছাড়া ম্যাসেঞ্জার-হোয়াটসঅ্যাপ-ইনস্টাগ্রামের ম্যাসেজিং সার্ভিস একীভূতকরণের প্রক্রিয়াও পিছিয়ে যেতে পারে।

ফেসবুক সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ গত বছরের মার্চে ম্যাসেঞ্জারে ডিফল্ট অ্যাণ্ড-টু-অ্যাণ্ড এনক্রিপশন সুবিধা আনার ঘোষণা দেন। প্রতিষ্ঠানটির সফটওয়্যার প্রকৌশলী জন মিলিকান বলেন, নতুন ফিচারটি যুক্ত করতে প্রতিষ্ঠানটির ইঞ্জিনিয়ারদের বেশ কাঠখড় পোড়াতে হচ্ছে। ২০২১ সালের আগে সুবিধাটি পাওয়া যাবে না।

জন মিলিকান আরো বলেন, অ্যাণ্ড-টু-অ্যাণ্ড এনক্রিপশন একটি দীর্ঘ প্রক্রিয়া। তাই আমরা হুড়োহুড়ি করে কিছুই করছি না। ঠিকভাবে পুরো পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে চাই আমরা।

সম্প্রতি শুধু সেলফোন নম্বর দিয়ে মেসেঞ্জার চালানোর সুবিধা বাতিল করার ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক। এখন থেকে মেসেঞ্জার চালাতে গেলে ফেসবুকে বাধ্যতামূলক অ্যাকাউন্ট থাকা লাগবে। এটি মূলত ম্যাসেঞ্জার-হোয়াটসঅ্যাপ-ইনস্টাগ্রামের ম্যাসেজিং সার্ভিস একীভূতকরণের প্রক্রিয়ার একটি ধাপ।

তবে ফেসবুকের এক মুখপাত্র বলেন, আমরা দেখেছি অধিকাংশ মেসেঞ্জার ব্যবহারকারী ফেসবুকে লগইন করে মেসেঞ্জার ব্যবহার করছেন। প্রক্রিয়াটিকে আরো সহজ করতে চাই আমরা। যারা এখন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ছাড়া মেসেঞ্জার ব্যবহার করছেন, তাদের মেসেঞ্জার সুবিধা বন্ধ হবে না। তাদের আপাতত কিছু করতে হবে না।

ম্যাসেজ এনক্রিপ্ট করা থাকলে সঠিক তথ্য দেখতে পায় না অ্যাকাউন্টে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীরা। বিভিন্ন কোড দিয়ে আসল ম্যাসেজ ঢেকে রাখা হয়। এই কোড খোলা চেখে কোনো মানুষের পক্ষে ডিক্রিপ্ট করা সম্ভব হয় না। তাই ম্যাসেজ সুরক্ষিত থাকে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন