চট্টগ্রামে প্রবাসফেরত স্বামীকে হত্যার অভিযোগ

  



পিএনএস ডেস্ক: চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নে স্ত্রীর হাতে প্রবাসফেরত স্বামীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী, শাশুড়ি ও স্ত্রীর চাচাতো ভাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেলে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

নিহতের নাম আবুল হাসেম (৪০)। তিনি হলদিয়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের এয়াছিন নগর গ্রামের অলিমিয়া কারিগর বাড়ির আলী আহমেদের ছেলে।

রাউজান থানার এসআই সাইমুল ইসলাম বলেন,‘ধারণা করছি শুক্রবার রাতের কোনো একসময় প্রবাসী আবুল হাসেমকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। নিহতের গলায় কালো দাগ রয়েছে। বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় আমরা নিহতের স্ত্রী রুনা আকতার (২৮), শাশুড়ি আমেনা বেগম (৪৫) ও স্ত্রীর চাচাতো ভাই জাহেদুল ইসলামকে (৩২) গ্রেফতার করেছি।’

স্থানীয় সূত্র জানায়, নিহত আবুল হাসেমের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে পারিবারিক বিরোধ চলছিল স্ত্রী রুনার। সপ্তাহ খানেক আগেও দুজনের মধ্যে ঝগড়া হয়। সর্বশেষ শুক্রবার (১০ আগস্ট) রাতে দুজনের মধ্যে আবারও ঝগড়া হয়। এরপর ওইদিন গভীর রাতে আবুল হাসেমের স্ত্রী দাবি করেন তার স্বামী মারা গেছেন। কিন্তু সকালে মরদেহ গোসল করানোর সময় দেখা যায়, নিহতের গলায় কালো দাগ।

এ সময় স্থানীয়দের কাছে বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে তারা স্থানীয় মেম্বারকে বিষয়টি জানান। পরে বিকেলে ৩টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

হলদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বিকেলে খবর পেয়ে পুলিশের সঙ্গে এ নিয়ে কথা হয়। বিষয়টি স্পর্শকাতর। মরদেহ উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।’

এদিকে স্থানীয় একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, প্রায় ১৩ বছর আগে নিহত আবুল হাশেমের সঙ্গে ফটিকছড়ি উপজেলার আব্দুল্লাপুর গ্রামের ছগির আহমেদের মেয়ে রুনা আকতারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে আবুল হাসেম দীর্ঘ সময় প্রবাসে কাটিয়েছেন। এ সময় রুনার সঙ্গে ‘পরকীয়ার’ সম্পর্ক গড়ে উঠে নিহতের চাচাতো ভাই জাহেদের। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার পারিবারিকভাবে কথাবার্তাও হয়। আবুল হাশেম বিদেশ থেকে ফেরার পরও বিষয়টি দৃশ্যমান থাকায় তিনি তা মেনে নিতে পারছিলেন না। এ নিয়ে আবুল হাশেমের সঙ্গে তার স্ত্রী রুনার প্রায়ই ঝগড়া হতো।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech