এবার মাংস না পেয়ে কনে পক্ষের উপর বর পক্ষের হামলা

  

পিএনএস ডেস্ক: সম্প্রতি খাবার আইটেমে চিংড়ি না থাকায় বিয়ে ভেঙে দেয়ার ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার বিয়ের অনুষ্ঠানে মাংস কম দেয়ায় কনে পক্ষের ওপর হামলা চালিয়েছে বর পক্ষ।

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওয়ের প্রিন্স অব ঈদগাঁও কমিউনিটি সেন্টারে বুধবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ক্লাবের চেয়ার-টেবিল, প্লেট-বাটি ও গ্লাস ভাঙচুর করা হয়। ভাঙচুরের কবল থেকে মালামাল রক্ষা করতে গিয়ে বর পক্ষের ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন বিয়ে ক্লাবের ম্যানেজার। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয় পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও কনে পক্ষের লোকজন জানান, কক্সবাজার সদরের খুরু স্কুল পেশকার পাড়ার আবদুস শুক্কুরের ছেলে আলমগীরের সঙ্গে চৌফলদন্ডি উত্তর পাড়ার প্রবাসী আমির হামজার মেয়ে উম্মে সাদিয়ার বিয়ের দিন ধার্য ছিল বুধবার। দুই পক্ষের সিদ্ধান্তে প্রিন্স অব ঈদগাঁও কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বুধবার বিকেলে বর পক্ষের লোকজন নববধূ নিতে বিয়ের অনুষ্ঠানে আসেন। এর আগে বর পক্ষের লোকজনকে আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়। বিয়ের অনুষ্ঠানে ৩০০ বরযাত্রী আসার কথা থাকলেও আসেন প্রায় ৫০০ জন। এতে অতিরিক্ত লোকের খাবার সংকট দেখা দেয়। এরপরও সবাইকে আপ্যায়নের চেষ্টা করেন কনে পক্ষ। ৩০০ জনের খাবার ৫০০ জনের মধ্যে বণ্টন করতে গিয়ে মাছ-মাংস এবং অন্যান্য তরকারির সংকট দেখা দেয়।

এ সময় মাংস কম দেয়ার অজুহাতে তরকারির বাটি ছুড়ে মারেন বর পক্ষের লোকজন। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির সৃষ্টি হলে ক্লাবের চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করেন বর পক্ষ। এ সময় পরিস্থিতি সামাল দিতে গেলে ক্লাবের ম্যানেজার আরফাতকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এতে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই শাহাজ উদ্দীন, এএসআই লিটনুর রহমান জয় ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অনুষ্ঠানে ভাঙচুর চালিয়ে বর পক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে বর আলমগীরের বাবা আবদুস শুক্কুর বলেন, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। নববধূকে ঘরে তোলার প্রক্রিয়া চলছে। যারা অনুষ্ঠানে হামলা চালিয়েছে তারা পালিয়ে গেছে।

ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ওসি (তদন্ত) আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। এটি দুঃখজনক ঘটনা। বিয়ে যেন না ভেঙে যায় এ জন্য উভয় পক্ষকে বসে সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার বটতলী বাজারের আলভী ম্যারেজ গার্ডেনে বিয়ের অনুষ্ঠানে চিংড়ি মাছ না দেয়ায় নিজের বিয়ে ভেঙে দেন বর। কয়েকদিন আগে দুই পক্ষের সমঝোতায় সেই বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন করা হয়।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech