বেনাপোলে বেড়েছে চাউল আমদানি ও সরবরাহ: স্থানীয় বাজারে কমেছে দাম

  

পিএনএস, বেনাপোল প্রতিনিধি : গত এক সপ্তাহের ব্যাবধানে যশোরের শার্শা ও বেনাপোলে চিকন ও মোটা চাউল কেজিতে কমেছে ৫টাকা। চলতি আমন মৌসুমে চাষীদের উৎপাদিত চাউল বাজারে আসা এবং সরবরাহ ও আমদানি বৃদ্ধির কারনে স্থানীয় খোলা ও প্রাইকারী চাউলের বাজারে দাম কমেছে।

প্রতি কেজি মোটা স্বার্না চাউল বিক্রি হচেছ ৩৭থেকে ৩৮টাকা। আর চিকন মিনিকেট বিক্রি হচ্ছে ৫২থেকে ৫৪টাকায়। আমদানি ও সরবরাহ আরো বৃদ্ধি পেলে দাম অনেকাংশে কমে আসবে বলে জানান ব্যাবসায়িরা- চাউল ক্রেতা-আরসাদ ও রাজীন হালদার বলেন চাউলের দাম অনেক কমেছে আরো একটু কমছে নিন্মআয়ের মানুষের ভাল হয়।

গত দু মাস আগে ভারত থেকে চাউল আমদানি হ্রাস সহ স্থানীয় বাজারে এক লাফে দাম যায় বেড়ে। মোটা চাউল ৩৬ টাকা থেকে ৫৮ টাকা। চিকন ৪৬ টাকা থেকে ৭০টাকা। ফলে বেনাপোল,নাভারণ.বাগআচড়া ও শার্শার বাজারে ক্রেতাদের নাভিম্বাস বাড়ে। পরে কমতে শুরু করে দাম। গত এক সপ্তাহের ব্যাবধানে খৃুচরা ও পাইকারী পর্যায়ে আরেক দফা কমেছ চাউলের দাম। প্রতিকেজিতে কমেছে ৫টাকা

ব্যাবসায়ি-নাসির উদ্দিন ও ফরিদ গাজি বলেন দাম কমায় স্বস্তিতে তারা। তবে আরো দাম কমার আশা করেন তারা। আমদানি রফতানি কারক সমিতির যুগ্নসম্পাদক আলহাজ্জ মহাসিন মিলন জানান, চাউলের আমদানি ও নতুন চাউল বাজারে আসায় কমছে দাম।

বেনাপোল স্থলবন্দর পরিচালক আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিন বন্দর দিয়ে আমদানি হচেছ শতশত মে:টন চাউল ফলে কমেছে দাম।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech