মাহমুদউল্লাহর সেঞ্চুরি

  

পিএনএস ডেস্ক : এনসিএলের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে ব্যাটে-বলে চমৎকার পারফরমেন্স করেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সর্বশেষ দুই ইনিংসেই ফিফটি পার করে আউট হন তিনি। এবার দ্বিতীয় রাউন্ডে এসে তুলে নিলেন সেঞ্চুরি। গতকাল শনিবার সেঞ্চুরির দুয়ারে দাঁড়িয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেচিলেন। ঢাকা মেট্রোর হয়ে অপরাজিত ছিলেন ৯৫ রানে। আজ চতুর্থ দিনে এসে সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি। আসন্ন ভারত সফরের আগে জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য এই ব্যাটসম্যানের জন্য এটা দারুণ প্রস্তুতি।

বগুড়ায় আজ রবিবার সকালে ২১৪ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন মাহমুদউল্লাহ। তিন অংক স্পর্শের মুহূর্তটি ছিল আত্মবিশ্বাসী। ৯৯ রানে দাঁড়িয়ে বাউন্ডারি হাঁকান আবু জায়েদ রাহীকে। তিন অংকে পৌঁছতে বাউন্ডারি মেরেছেন মাত্র ৬টি আর ছক্কা একটি। বোঝাই যায় যে, ধৈর্য সহকারে পুরো টেস্ট মেজাজে খেলে প্রস্তুতিটা সমৃদ্ধ করেছেন মাহমুদউল্লাহ। শেষ পর্যন্ত তিনি ২৪৩ বল খেলে ১১১ রান করে আউট হন। এবার জাতীয় লিগের প্রথম রাউন্ডের একমাত্র ইনিংস আর চলতি রাউন্ডের প্রথম ইনিংস, দুটিতেই মাহমুদউল্লাহ আউট হয়েছিলেন ৬৩ রান করে।

সর্বশেষ ২০১৫ সালের অক্টোবরে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। জাতীয় লিগেই ঢাকা মেট্রোর হয়ে খুলনা বিভাগের বিপক্ষে ফতুল্লায় করেছিলেন ১‌৩২ রান। পরের ৪ বছরে ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ম্যাচই খেলেছেন মাত্র ৩টি। এবার বিসিবি জাতীয় ক্রিকেটারদের এনসিএলে খেলা বাধ্যতামূলক করায় একদিক দিয়ে ভালোই হয়েছে মাহমুদউল্লাহর জন্য। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যানের এটি দ্বাদশ সেঞ্চুরি। আর টেস্ট ক্রিকেটে করেছেন ৪ সেঞ্চুরি। সামনেই ভারতের মাটিতে কঠিন টেস্ট সিরিজ খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech