ডিমলায় বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে কিশোর-কিশোরীদের ক্ষমতায়নে উঠান বৈঠক

  

পিএনএস, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : “আপনি আওয়াজ তুললেই বন্ধ হবে বাল্য বিয়ে ” এবং “এখনই নয়, লেখা পড়া করবো নিজের পায়ে দাঁড়াবো, হব আমি বাবা-মায়ের গর্ব”-শ্লোগানে নীলফামারীর ডিমলায় সদর ইউনিয়ন জনকল্যাণ সংস্থা মাঠে গতকাল ইউনিসেফ’র সহযোগীতায় ও আরডিআরএস-বাংলাদেশের বাস্তবায়নে ই.সি.এম.এ.ই প্রকল্পের আওতায় বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে কিশোর-কিশোরীদের ক্ষমতায়নে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানা যায়, উক্ত প্রকল্পের আওতায় কিশোর-কিশোরী ক্লাব গঠন করে তাদের শিক্ষা জীবনমান ও দক্ষতা উন্নয়ন , হাইজিনিং, শিশু সুরক্ষা , শিশু অধিকার, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধি, উঠান বৈঠক, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে নাটিকা , আলোচনা সভা ও কিশোর-কিশোরীর অভিভাবকদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিসহ নানা কর্মসূচি পালন । বৈঠকে ইউনিয়ন ফ্যাসিলেটেটর ববিতা আক্তারের সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা করেন ইউনিসেফ প্রতিনিধি সিনিয়র কমিউনিকেশন এন্ড উন্নয়ন অফিসার তানিয়া শারমিন, শিশু সুরক্ষা অফিসার জেসমিন হোসাইন মনি, কমিউনিকেশন এন্ড উন্নয়ন অফিসার মন্জুরুল হক, নীলফামারীর প্রকল্প কো-অর্ডিনেটর সিদ্দিকুর রহমান, উপজেলা কো-অর্ডিনেটর এস.এম আমীর হোসেন, স্বাস্থ্যকর্মী মহববত হোসেন, সাংবাদিক জাহাঙ্গীর রেজা সহ অন্যান্যরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কিশোর-কিশোরী, অভিভাবক, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার গনমাধ্যম কর্মীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। উঠান বৈঠকে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধিতে মঞ্চায়িত হয় নাটিকা “বাল্যবিয়ের শিকার ময়নার শেষ পরিণতি”।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল



 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech