টঙ্গীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

  


পিএনএস ডেস্ক: গাজীপুরের টঙ্গীতে পারিবারীক কলহের জের ধরে স্বামীর হাতে স্ত্রী শাজেদা বেগম (২৯) খুন হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার দিবাগত রাত দুইটায় মেঘনা রোড এলাকায় । পুলিশ অভিযুক্ত স্বামী মো.রুবেল মিয়াকে আটক করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। স্বামী রুবেল নরসিংদি জেলার ঘোড়াশাল থানার মো.শাহী মিয়ার ছেলে।

টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক মানিক মাহমুদ বলেন, কয়েক বছর আগে রুবেল ও শাজেদার বিয়ে হয়। তাঁরা টঙ্গীর মেঘনা রোড বস্তিতে থাকতেন এবং ভাঙ্গাড়ি দোকানে কাজ করতেন। যৌতুকের টাকা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে স্বামী রুবেল স্ত্রী শাজেদাকে ঘুমের ঘরে বাঁলিশ চাপা দিয়ে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে। পরে ঘটনাটি আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিতে চেষ্টা চালায় স্বামী রুবেল। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশটি উদ্ধার করে গাজীপুর মর্গে প্রেরণ করেন। অপরদিকে রুবেলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। নিহত শাজেদা তিন সন্তানের জননী।

নিহতের পিতা ফরিদ মিয়া জানান, নেশার টাকা না দিতে পারায় আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। আমার মেয়ে ভাঙ্গাড়ির দোকানে কাজ করে এতোদিন নেশার টাকা দিয়ে এসেছে। এখন দেড় মাসের বাচ্চা নিয়ে কাজ করতে পারে না, টাকাও দিতে পারে না, তাই তাঁকে মেরে ফেলেছে।

টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.কামাল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech